টাকার অভাবে বাবার চিকিত্‍সা থেমে, তিতলির কাতর আবেদনে পাশে এসে দাঁড়ালেন তারকা-সাংসদ দেব

ওয়েব ডেস্ক বিবিধ ভাইরাল

HNExpress ওয়েব ডেস্ক : রাজ্য জুড়ে চলছে রাজনৈতিক অশান্তি হিংসার বাতাবরণ। এমন পরিস্থিতিতে লোকসভার সাংসদ তথা অভিনেতা দেব মানুষের কাছে পৌঁছে যাচ্ছে সাহায্যের ডালি নিয়ে। এক কথায় বাংলার ‘সোনু সুদ’ এখন দীপক অধিকারী। কখনো করোনা আক্রান্ত ব্যক্তি ও তার পরিবারকে বিনামূল্যে খাবার পৌঁছে দিচ্ছেন। আবার কখনো ভিন রাজ্যে থাকা পরিযায়ী শ্রমিকদের ফিরিয়ে আনা। করোনা কাল থেকেই এমন অনেক ঘটনার নিদর্শন উঠে এসেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

SHEIN Many GEO's

এবারও তার অন্যথা নয়। সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিলেন ছোট্ট তিতলির দিকে। আসলে সম্প্রতি জৈনিক নীলঞ্জিত গায়েন নামক এক নেটবাসীর সোশ্যাল মিডিয়ায় উঠে আসে এক ছোট্ট মেয়ের ভিডিও বার্তা। যেখানে মেয়েটি পরিবারের দুরাবস্থার কথা জানান, ‘ছোট্ট তিতলি কাতর কণ্ঠে জানায় বাবার অসুস্থতার কথা, বাবা ছাড়া সে অনাথ, বাবার চিকিত্‍সা তো দূরের কথা এখন খেয়ে বাঁচার মতো টাকাও নেই। তাই কারোর মনে হলে তাকে যেনো সাহায্য করে।’ সে সাহায্যে অবশ্য অনেকেই সাড়া দিয়েছেন। জানা যায় তার বাবা সন্দীপ দত্ত একজন সেলসম্যান। স্ত্রী মুনমুন দত্ত ও মেয়েকে নিয়ে থাকেন চুঁচুড়ার অন্তার বাগানের এক ভাড়া বাড়িতে। কিন্তু তিন বছর ধরে কার্যত শয্যাসায়ী সন্দীপ বাবু। প্রথমে প্যাংক্রিয়াসের সমস্যা দেখা দেয়। এর পর সুগারের কারণে লিভার ও কিডনিও খারাপ হয়। প্যাংক্রিয়াসের সমস্যার সমাধানই ছিল সুস্থতার চাবিকাঠি কিন্তু অস্ত্রপ্রচার করতে প্রয়োজন ছিল ৬ লক্ষ টাকা। তা জোগাড় করতে না পারায় ব্যাঙ্গালুরুতে গিয়েও অস্ত্রপ্রচার সম্ভব হয়নি। এর পর কোমরে ইনফেকশন হওয়ায় একেবারেই শয্যাসায়ী হয়ে পড়েছেন গৃহকর্তা। তাতেই বেড়েছে আরো সমস্যা।

Times Prime [CPA] IN Times Prime [CPA] IN

তবে নেটাগরিক নীলঞ্জিত গায়েনের মাধ্যমেই তিতলির ভিডিও বার্তা পৌঁছে যায় সাংসদ দেবের কাছে। আর তাতেই হয় সুরাহা। তিতলির পরিবারকে সমস্ত রকম সাহায্যে করে পাশে দাঁড়ান দেব। দেবের এই উদ্যোগকে সমর্থন জানিয়ে এগিয়ে এসেছেন চুঁচুড়ার বিধায়ক অসিত মজুমদারও।

Pharmeasy [CPS] IN

SHEIN Many GEO's