কলকাতায় দুঃস্থ রোগীদের জন্য চালু হল “অক্সিজেন অন হুইলস”

বিবিধ শরীর-স্বাস্থ্য

HNExpress নিজস্ব প্রতিনিধি : কোভিডের ভয়াবহ দ্বিতীয় তরঙ্গ মোকাবিলায় এবং সরকার তথা রাজ্যের সমগ্র স্বাস্থ্যব্যবস্থাকে সাহায্য প্রদান করার জন্য “অক্সিজেন অন হুইলস” নামের এক অভিনব প্রয়াস শুরু করল “জৈন ইন্টারন্যাশনাল ট্রেড অর্গানাইসেশন” বা জে.টি.ও। শহরের দুঃস্থ পরিবারগুলি যাতে আর্থিক অনটনের শিকার হয়ে প্রাণ না হারায় সেই কথা মাথায় রেখেই এই ব্যবস্থা, যা মূলত একটি অক্সিজেন সরবরাহকারী বাস।

SHEIN Many GEO's

পশ্চিমবঙ্গ স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ দপ্তরের সঙ্গে কাজ করে এই বাসটি চালু করা হয়েছে ১১ মে থেকে। এটি ৩২টি সিটের একটি বাস যাতে রয়েছে পাঁচ এলপিএম যুক্ত চারটি অক্সিজেন কন্সেন্ট্রেটর, পাখা, মোবাইল চার্জিং পয়েন্ট এছাড়াও রোগীদের শোয়ানো বা বসানোর সুবিধার জন্য সিট্গুলি নতুনভাবে তৈরী করা হয়েছে। একসঙ্গে চারজন রোগীকে রাখা যেতে পারে বাসগুলির ভিতরে। প্রতিটি সরকারি হাসপাতালের বাইরেই থাকবে বাসগুলি যাতে রোগীদের যত শীঘ্র সম্ভব অক্সিজেন যোগান দেওয়া যায়। হাসপাতাল থেকে একজন করে হেলথ টেকনিশিয়ানেই ব্যবস্থা করা হবে অক্সিজেন সাপোর্টের জন্য। তবে রোগীদের এই সুবিধা দেওয়ার অনুমতি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ মারফত দেওয়া হবে। বাসে অক্সিজেন সাপ্লাইয়ের জন্য ইলেক্ট্রিকের যোগানও দেবে হাসপাতাল। এটি প্রয়োজন অনুযায়ী শহরের একপ্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে যাতায়াতও করবে এবং কোথায় কিভাবে যাবে তার অনুমতিও দেবে রাজ্য স্বাস্থ্য দপ্তর।

Times Prime [CPA] IN Times Prime [CPA] IN

জেআইটিও কলকাতা চ্যাপ্টারের চেয়ারম্যান রাজেশ ভুতোরিয়ার মতে, “আমরা বিশ্বাস করি যে এই সময় আমাদের সবাইকে একত্রিত হয়ে কাজ করতে হবে মানবজাতির স্বার্থে। একসঙ্গে এই মারণ ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইতে মানুষের জীবন বাঁচানোর স্বার্থে কাজ করার জন্য আমরা সবসময় এগিয়ে আসতে চাই।” জেআইটিও-এর মাননীয় সেক্রেটারি ভাবেন কামদার বলেন, “রাজ্যের মাননীয় মুখ্যমন্ত্রীর কাছে আমরা কৃতজ্ঞতা জানাই যখন উদ্যোগটির কথা ঘোষণা হয়েছিল তার কয়েক ঘন্টার মধ্যেই আমাদের প্রকল্প রূপায়ণের অনুমতি দেওয়ার জন্য এবং স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ দফতর কর্তৃক সর্বাত্মক সহযোগিতা প্রদানের জন্যও আমরা কৃতজ্ঞ।” এই প্রয়াসের পিছনে অন্যতম একজন ব্যক্তি শীতল দুগ্গার বলেন, “মাত্র ৪৮ঘন্টার মধ্যে এই প্রয়াসকে বাস্তবায়িত করা হয় এবং বিনোদ দুগ্গার সঙ্গে সঙ্গে পরিকল্পনা রূপায়ণের জন্য একাধিক স্কুল বাস আমাদের হাতে তুলে দিতে দ্বিধাবোধ করেননি।”

Pharmeasy [CPS] IN

“অক্সিজেন অন হুইলস”-এর একটি বাসের জন্য খরচ তিন লক্ষ টাকা যার পুরোটাই বহন করছে জেআইটিও। রাজ্যের স্বাস্থ্য ব্যবস্থাকে সাহায্যের জন্য এবং রোগীদের পরিষেবা দেওয়ার জন্য আরও দু’একটি অক্সিজেন অন হুইল বাস চালু করার পরিকল্পনা নিয়েছে এই নন-প্রফিট সংস্থাটি। প্রকল্পটি সুষ্ঠ ভাল একবার চালু হলে অক্সিজেন কন্সেন্ট্রেটরের সংখ্যা চার থেকে ছয় করারও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যে এনআরএস হাসপাতালের সামনে থেকে কাজ শুরু করে দিয়েছে “অক্সিজেন অন হুইলস।

SHEIN Many GEO's