বইমেলা ২০২১ শহরে হটাৎ বই চলাচল

কলকাতা জেলা ব্যবসা-বাণিজ্য রাজ্য

HNExpress সায়নজিৎ ভৌমিক : শীতকাল মানেই সোয়েটার, নলেনগুড়, বেড়াতে যাওয়া, পিকনিক, নানারকম খাবার, আনন্দ, হই-হুল্লোড় আর অবশ্যই বইমেলা। কিন্তু করোনা আবহে ‘কলকাতা আন্তর্জাতিক বইমেলা’ ঠিক কবে? উত্তর জানা নেই কারও। আশেপাশের জেলায় বইমেলার খবর পাওয়া যাচ্ছে, কিন্তু কলকাতায় এখনও অনিশ্চয়তা। তাই মনখারাপ বইপ্রেমী শহরবাসীর।

SHEIN Many GEO's

অবশেষে এমন নিরাশার মধ্যে এক আনন্দের বার্তা। শহরজুড়ে শীতের মরসুমে হবে বইমেলা। এই সময়ের কলকাতার একমাত্র পুস্তকমেলা। বর্ণপরিচয় নিবেদিত, পশ্চিমবঙ্গ প্রকাশক সমন্বয় কমিটি আয়োজিত ‘কলকাতা বইমেলা ২০২১’। সহযোগিতায় নেক্সটজেন মিডিয়া। শুরু ২৮ জানুয়ারি । চলবে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত। স্থান :উত্তর কলকাতার আমহার্স্ট স্ট্রিটের, ঋষিকেশ পার্ক।সময়: দুপুর দুটো থেকে রাত ন’টা। নামকরা সব প্রকাশনীর মন ভালো করা বইয়ের সম্ভার থাকছে বইমেলায়। অতিমারি কালে এমন বইমেলার খবর ‘ভ্যাকসিন’ পাওয়ার আনন্দ থেকে বোধহয় কিছু কম নয়। বইমেলায় থাকছে ৩০ থেকে ৩৫ টি স্টল। থাকছে লিটল ম্যাগাজিনের স্টল, অনলাইন ম্যাগাজিন গ্যালারি। আর অবশ্যই থাকছে খাবার স্টলও। এছাড়াও থাকবে সাংস্কৃতিক মঞ্চ।

Times Prime [CPA] IN Times Prime [CPA] IN

বাড়তি আকর্ষণ হিসেবে, ৩০ জানুয়ারি সন্ধেবেলা শান্তিনিকেতন থেকে মেলায় আসছে বাউল শিল্পীরা। বইয়ের স্টলের পাশাপাশি চলবে সাহিত্য নিয়ে আলোচনা, প্রকাশিত হবে নতুন বই। নিজেদের সম্ভার নিয়ে হাজির থাকবে বইপাড়াও। ‘বইমেলা ২০২১’এর উপহার, ২৫ শতাংশ ছাড়ে বই কেনার সুযোগ! এরই পাশাপাশি ২৬ জানুয়ারি অর্থাৎ সাধারণতন্ত্র দিবসে ট্রাম ট্যাবলো যাত্রা শুরু হবে। বইয়ে ঠাসা চলন্ত ট্রামে চলবে গান, সাহিত্যচর্চা। বিশেষ ট্রামটির যাত্রাপথ ধর্মতলা থেকে শ্যামবাজার।

Pharmeasy [CPS] IN

বইমেলা কমিটির চেয়ারম্যান দীপ প্রকাশনের কর্ণধার শঙ্কর মণ্ডল বলেন, “এই উদ্যোগ বইপ্রেমীদের প্রাণের টান। হয়ত স্থানাভাবে ও সময়াভাবে তেমন বড় করা গেল না, কিন্তু আমরা নিশ্চিত যে এই বইমেলাও তৃপ্তি দেবে।” কমিটির আহ্বায়ক দেব সাহিত্য কুটিরের ডিরেক্টর রূপা মজুমদার বলেন, “এটি নিউ নর্মাল বইমেলা। কোভিডে প্রকাশকদের ব্যবসা ও মনে যে ভাঁটার টান এসেছিল, তা থেকে ঘুরে দাঁড়ানোর বইমেলা। যেভাবে প্রকাশকরা এগিয়ে এসেছেন, আমরা অভিভূত। কষ্ট হচ্ছে এই ভেবে যে স্থানাভাব ও কোভিড সতর্কতায় সকলকে স্থান দেওয়া যাচ্ছে না। যথাসাধ্য চেষ্টা হচ্ছে।”

SHEIN Many GEO's

বই মনের আরামের এক নিরবিচ্ছিন্ন ঠিকানা। তাই বইমেলার অন্যতম উদ্যোক্তা অনিরুদ্ধ রায় আহ্বান জানাচ্ছেন, “বইতো আমাদের সবচেয়ে প্রিয় বন্ধু। তাই বইমেলা আসুন, বই দেখুন, বই কিনুন, এবং প্রিয়জনকে বই উপহার দিন।” হিমেল আমেজে বইয়ের গন্ধ, টুকটাক খাওয়া, আর গরম কফিতে চুমুক। সঙ্গে নির্ভেজাল আড্ডা। উৎসাহী শহরবাসী শুরু করেছেন তারই দিন গোনা। তাই বইপ্রেমীদের অবশ্য গন্তব্য স্থান আমহার্স্ট স্ট্রিটের কলকাতা বইমেলা ২০২১। (Kolkata Book Fair 2021)