‘কোভ্যাক্সিন’ নিলেন পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম

করোনার কামড় (COVID-19) রাজ্য

HNExpress ওয়েব ডেস্ক : বুধবার সকালে বেলেঘাটা নাইসেডে করোনা টিকা’কোভ্যাক্সিন’ -এর তৃতীয় পর্যায়ের পরীক্ষার সূচনা করেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। আর বিকেলে ‘কোভ্যাক্সিন’নিলেন রাজ্যের পুর ও নগরোন্নয়নমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। এদিন বিকেলে কলকাতা পুরসভার প্রশাসকমণ্ডলীর চেয়ারম্যান তথা পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম বেলেঘাটা নাইসেডে পৌঁছন।

SHEIN Many GEO's

তারপর তাঁর শারীরিক পরীক্ষা করা হয়। পুরমন্ত্রীর কোনও কো-মর্বিডিটি না থাকায় তাঁকে’কোভ্যাক্সিন’ দেওয়া হয়। ২৮ দিন পর ফের ফিরহাদ হাকিমকে দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হবে বলে নাইসেড সূত্রে খবর। যদিও গতকাল মঙ্গলবার বেলেঘাটা নাইসেডে বিপ্লব যশ নামে একজনকে ‘কোভ্যাক্সিন’ দেওয়া হয়েছে বলে খবর।

Times Prime [CPA] IN Times Prime [CPA] IN

সেই দিক থেকে পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম হলেন দ্বিতীয় ‘কোভ্যাক্সিন’গ্রহীতা। তবে উদ্বোধনের পর ফিরহাদ হাকিমই প্রথম। ভারতের তৈরি’কোভ্যাক্সিন’ নেওয়ার পর পুরমন্ত্রী বলেন, পরীক্ষামূলক ভ্যাক্সিন আমাকে দেওয়া হয়েছে। ‘কোভ্যাক্সিন’ নেওয়ার পর আমার পর কোনও সমস্যা হয়নি। তবে নাইসেড কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করেছি, তাড়াতাড়ি পরীক্ষামূলক ‘কোভ্যাক্সিন’ ফলাফল জেনে যাতে সাধারণ মানুষকে দেওয়া যায়।

Pharmeasy [CPS] IN

নাইসেড সূত্রে খবর, যে সব স্বেচ্ছাসেবককে এই পরীক্ষামূলক ‘কোভ্যাক্সিন’ নেবেন, তাঁরা পরীক্ষা প্রক্রিয়া শেষ না হওয়া পর্যন্ত ঠিকানা ছেড়ে কোথাও যেতে পারবেন না। কারণ নিয়মিত তাঁদের শরীরের প্রতি নজর রাখবে নাইসেড। সূত্রের খবর,ইতিমধ্যেই কলকাতার স্বেচ্ছাসেবকদের প্রাথমিক তালিকা তৈরি করা হয়ে গিয়েছে।

SHEIN Many GEO's

যাদের বাড়ি বেলেঘাটা নাইসেড থেকে ১০ কিলমিটারের মধ্যে তাদেরকেই সুযোগ দেওয়া হয়েছে। পরীক্ষামূলক এই টিকা নেওয়ার পর কিছুটা ঝুকি থাকছে। তবে নাইসেড সূত্রে খবর, প্রথম ও দ্বিতীয় দফার ট্রায়ালে ‘কোভ্যাকসিন’ ভাল ফল দিয়েছে। কিছুদিন আগেই পরীক্ষামূলক প্রয়োগের জন্য হায়দরাবাদ থেকে কলকাতা নাইসেডে এসেছে ১ হাজার টিকা। যা নিঃসন্দেহে করোনা পরিস্থিতির মধ্যে বড় খবর। নাইসেডে মাইনাস ৪ ডিগ্রি তাপমাত্রায় ভ্যাকসিনগুলিকে সংরক্ষণ করা হয়েছে বলে খবর।

সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাত্‍কারে নাইসেডের অধিকর্তা শান্তা দত্ত বলেছিলেন, এটা থার্ড ফেসের ট্রায়াল। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। দেশে প্রায় ২৬ হাজার মানুষের মধ্যে ট্রায়ালের দায়িত্ব পেয়েছে ২৪টি সংস্থা। তার মধ্যে বেলেঘাটা নাইসেড রয়েছে।